সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ১০:১৩ অপরাহ্ন

বাউফলে নেশার টাকা না দেয়ায় রিক্সাচালককে পিটিয়ে যখম

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ১৪ মে, ২০২১
  • ২৯৬ জন নিউজটি পড়েছেন

পটুয়াখালীর বাউফলে নেশার টাকা না দেয়ায় গরিব এক রিক্সাচালককে পিটিয়ে যখম করার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বাউফল উপজেলার দাশপাড়া ইউপির ০৪ নং ওয়ার্ডের সরদার বাড়ী সংলগ্ন এলাকায়।

আহত রিক্সাচালকের নাম মোঃ এশরাত হাওলাদার(৩৫) পিতা: মৃতঃ আবদুস সত্তার।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় গত ১০ই মে সোমবার রিক্সাচালক এশরাত হাওলাদার(৩৫)  বাড়ি থেকে বাজারের দিকে যাচ্ছিলো এসময় দাশপাড়া ইউপির সরদার বাড়ী সংলগ্ন রাস্তার কাছে আসলে স্থানীয় কয়েকজন যুবক হঠাৎ রিক্সা থামিয়ে এলোপাতারি ভাবে মোঃ এশরাত হাওলাদার(৩৫) কে মারতে থাকেন এক পর্যায়ে এশরাত হাওলাদার(৩৫) রিক্সা থেকে পরে গেলে তারা(যুবকরা) রাস্তার পাশে থাকা গাছের ঠাল ভেঙ্গে এলোপাতারি ভাবে আবার পেটাতে থাকেন।

এক পর্যায়ে এশরাত হাওলাদারের চিৎকার শুনে আশে পাশের প্রতিবেশীরা বের হলে তারা দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। ঔই অবস্থায় স্থানীয়রা মোঃ এশরাত হাওলাদার(৩৫) কে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন, জরুরী বিভাগে থাকা ডাঃ প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নতর চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেন।

ঔইদিন ১০ মে সোমবার ভর্তি হবার পর থেকে আজ ১৪ মে শুক্রবার রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মোঃ এশরাত হাওলাদার(৩৫) এখনো বাউফল হাসপাতালেই ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। পিটানোর প্রচন্ড আঘাত লাগায় মোঃ এশরাত হাওলাদারের(৩৫) ডান হাত ভেঙ্গে গিয়েছে, এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্ত জমাট বেধেছে।

এ বিষয়ে আহত রিক্সাচালক মোঃ এশরাত হাওলাদার(৩৫) বলেন ঘটনার সূত্রপাত ঘটে মূলত ৮ মে শনিবার, আমি রিক্সা নিয়ে বাড়ির দিকে আসতেছিলাম তহন সরদার বাড়ীর সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎই রিক্সা থামিয়ে দেন মোঃ রবিন(১৮) পিতাঃ মোঃ রফিক।

মোঃ রবিন(১৮) মাতাল অবস্থায় ছিলো, ও আমার কাছে টাকা চায় , আমি বলি কির টাকা দিমু ও কয় আমার লাগবে তাই দিবি কি কাজে লাগবে তা তোর ধরকার নাই। এই বলে আমার সাথে জগড়া শুরু করে দেয়, আমি ঐদিন কোনো রকম কথা ঘুড়িয়ে চলে আসি, এরপর ঘটনার দিন সোমবার আবারো মোঃ রবিন(১৮) আমার রিক্সার সামনে হঠাৎ কইরা দাড়াইয়া রিক্সা থামাইয়া দেয় আমি কোনো কথা বলার আগেই ও আমার কলার ধরেই কিল,ঘুসি দেয়া শুরু করে তখন ওর সাথে রাকিব(১৮),সাইদ(১৮),বাচ্চু(৩৮),জাহিদ(৩৬) এরাও ছিলো, আমি রিক্সা থেকে পরে গেলে গাছের ঠাল ভেঙ্গে পিটাতে থাকে আমি সয্য না করে জোড়ে চিৎকার করলে আশেপাশের লোকজনরা চলে আসে, এরপরে স্থানীয় লোকজনেেই আমারে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

এই ঘটনার পর-পরই আমার পরিবারের পক্ষ থেকে স্থানীয় যুবলীগ নেতা আতিকুল্লাহ্ মোহনকে বিষয়টি জানাই তিনি হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নিতে বলেন, ভর্তি হবার পর আমার পরিবারের পক্ষ থেকে একাদিক বার থানায় গেলেও আমরা কোনো মামলা করতে পারিনি। পুলিশ বলে আমনেগো ঔই ব্যাপার স্থানীয় ভাবে সমাধান করে দেয়া হবে।

মামলা নিচ্ছে না আবার স্থানীয় ভাবেও কোনো সমাধান হচ্ছেনা, ঔদিকে গতকাল ১২মে বুধবার বাচ্চু(৩৮),জাহিদ(৩৬) হাসপাতালে এসে হুমকিও দিয়ে গেছে।

আমি গরিব মানুষ এই চিকিৎসার খরচ চালানোর মত সামর্থ্য আমার কাছে নাই, আর ওনারা যেভাবে ভয়-ভিতি দেখাচ্ছেন তাতে আমি সহ আমার পরিবারের সবাই খুব আতঙ্কের ভিতরে আছি।

এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা আতিকুল্লাহ মোহন বলেন আমি ঘটনাটি শুনেছি, দুই পক্ষের সাথেই কথা বলেছি ঈদের ব্যস্ততার জন্য সুযোগ করে কোথাও বসতে পারছিনা তবে ২-১ দিনের ভিতরই সমাধান করে দিবো।

এ বিষয়ে বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি(তদন্ত) আল মামুন বলেন আমি ঘটনাটির ব্যাপারে শুনেছি, শুনে সাথে-সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি,

মামলা নেয়া হচ্ছেনা নাকি এ ব্যাপারে তিনি বলেন আসলে মামলা নেয়া হবেনা এমন কিছু নয়,  শুনেছি স্থানীয় ভাবে মিমাংসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে, স্থানীয় ভাবে কোনো সমাধান  না হলে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

আমাদের বাউফল ডট কম পরিবারের পক্ষ থেকে সবাইকে জানাচ্ছি পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আর নিউজ
© All rights reserved © 2019 amaderbauphal.com
themesba-lates1749691102